কেশবপুরে এইচএসসিতে ফেল করার শঙ্কায় শিক্ষার্থীর আত্মহত্যা

অলিয়ার রহমান | প্রকাশিত: ২৬ নভেম্বর ২০২৩ ২২:৫৪

অলিয়ার রহমান
প্রকাশিত: ২৬ নভেম্বর ২০২৩ ২২:৫৪

ছবিঃ নিউজ

অলিয়ার রহমান,কেশবপুর প্রতিনিধিঃ


যশোরের কেশবপুরে এইচএসসি পরীক্ষায় ফেল করার শঙ্কায় তামান্না আক্তার তমা (১৮) নামে এক কলেজ ছাত্রী আত্মহত্যা করেছে। ঘটনাটি ঘটেছে রোববার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে উপজেলার মাদারডাঙ্গা গ্রামে। তবে মৃত্যুর পর জানা গেল, তমা ৪ দশমিক ৯২ পেয়ে উত্তীর্ণ হয়েছে।
এলাকাবাসী ও পুলিশ জানায়, উপজেলার মাদারডাঙ্গা গ্রামের জাহিদ হোসেন বাবুর মেয়ে তামান্না আক্তার তমা চলতি বছর কেশবপুরের পাঁজিয়া মহাবিদ্যালয় হতে বিএম শাখা থেকে এইচএসসি পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করে। পরীক্ষার পর থেকে তার ভেতর ফল বিপর্যয়ের ভীতি কাজ করছিল। এ ছাড়া পরীক্ষায় অকৃতকার্য হতে পারে এমনটি মনে করে তমা হতাশায় থাকতো। ফলাফল প্রকাশের দিন (রোববার) সকাল সাড়ে ১০টার দিকে হতাশাগ্রস্ত হয়ে তমা নিজ ঘরে আড়ার সঙ্গে ওড়না পেঁচিয়ে গলায় ফাঁস লাগিয়ে ঝুলে পড়ে। পরিবারের লোকজন দেখতে পেয়ে তাকে উদ্ধার করে বেলা ১১টার দিকে কেশবপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে আনলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।
পাঁজিয়া ডিগ্রী কলেজের অধ্যক্ষ রুহুল আমিন বলেন, তামান্না আক্তার তমা এ বছর বিএম শাখা থেকে এইচএসসি পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করে। ফলাফলে তমা ৪ দশমিক ৯২ পেয়ে উত্তীর্ণ হয়েছে। তার রোল নাম্বার- ৩৫৯৯০১।
কেশবপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জহিরুল আলম বলেন, পরীক্ষায় অকৃতকার্য হতে পারে এমন হতাশায় তামান্না আক্তার তমা গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করে। কোন অভিযোগ না থাকায় পরিবারের নিকট মরদেহ হস্তান্তর করা হয়েছে।#



আপনার মূল্যবান মতামত দিন: